\ লন্ডনে মেসি প্যারিসে নেইমার | Bangla Photo News
Wednesday , December 19 2018
Homeখেলাধুলালন্ডনে মেসি প্যারিসে নেইমার
লন্ডনে মেসি প্যারিসে নেইমার

লন্ডনে মেসি প্যারিসে নেইমার

বাংলা ফটো নিউজ : লিওনেল মেসি আর জেরার্দ পিকের ভেতর মনোমালিন্য। গত দুই মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে প্রতিপক্ষের মাঠে কাতালানদের গোলখরা। টটেনহামের বিপক্ষে ম্যাচের আগে কত কিছুই না ছিল কাগজে। ওয়েম্বলির ৯০ মিনিটের পর শুধু একটাই প্রসঙ্গ, ‘মেসি ম্যাজিক’। বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ গোলদাতার দল, যে দলে কোচ আবার এক আর্জেন্টাইন, তাদের বিপক্ষে ৪-২ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। মেসির জোড়া গোল, একবার করে লক্ষ্যভেদ ফিলিপে কৌতিনিয়ো আর ইভান রাকিটিচের। লন্ডনে মেসির জোড়া গোলের রাতে প্যারিসে নেইমারের হ্যাটট্রিক। রেড স্টার বেলগ্রেডের বিপক্ষে ৬-১ গোলে জয় প্যারিস সেন্ত জার্মেইর, তাতে নেইমার বাদে পিএসজির আক্রমণের বাকি তিনজনও স্কোরশিটে তুলেছেন নাম। ওদিকে মাদ্রিদেও জয়, আন্তোয়ান গ্রিয়েজমানের জোড়া গোলের সঙ্গে কোকের গোলে অ্যাতলেতিকো ৩-১ গোলে হারিয়েছে ক্লাব ব্রুজেকে। চারপাশ থেকে ভেসে আসা এত সব জয়ের আনন্দে নিরানন্দ শুধু লিভারপুল সমর্থকদের, তারা যে ১-০ গোলে হেরে গেছে নাপোলির কাছে।

চ্যাম্পিয়নস লিগের চলতি মৌসুমের দ্বিতীয় ম্যাচ ডে। গ্রুপ পর্বে সব দলেরই এটি দ্বিতীয় ম্যাচ। প্রথাগতভাবেই প্রতিযোগিতার এই পর্যায়টায় বেশ গোল হয়, এবারও ব্যতিক্রম নয়। মঙ্গলবার রাতে হ্যাটট্রিক করেছিলেন জুভেন্টাসের পাউলো দিবালা ও রোমার এদিন জেকো। বুধবার রাতে নেইমারের হ্যাটট্রিক। জোড়া গোল মেসি, গ্রিয়েজমানেরও। ২০১১ সালে এই ওয়েম্বলিতেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জিতেছিল বার্সেলোনা, মেসি হয়েছিলেন সেরা খেলোয়াড়। সেদিন ওয়েম্বলিতে করেছিলেন এক গোল, বুধবার রাতে করলেন এক জোড়া। ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই কৌতিনিয়ো এগিয়ে দিয়েছিলেন বার্সাকে, এরপর ২৮ মিনিটে রাকিটিচের গোল। ৫২ মিনিটে হ্যারি কেইন ব্যবধান কমানোর ৪ মিনিট পরই মেসির গোল। ১০ মিনিট পর লামেলা ব্যবধান কমিয়ে আনলেও ৯০ মিনিটে মেসির গোল নিশ্চিত করে বার্সেলোনার ৪-২ গোলের জয়। ‘বি’ গ্রুপে অন্য ম্যাচে ইন্টার মিলান ২-১ গোলে পিএসভি আইন্দহোফেনকে হারিয়ে দেওয়ায় টটেনহামের চ্যাম্পিয়নস লিগে টিকে থাকাই কঠিন হয়ে উঠল। দুই ম্যাচেই হারে তারা পয়েন্টহীন। শীর্ষ দুইয়ে বার্সেলোনা ও ইন্টার, দুই দলেরই পয়েন্ট ৬। পরের রাউন্ডে উঠতে হলে এই দুই দলের একটিকে পেছনে ফেলতেই হবে স্পারদের।

লিভারপুলের কাছে ৩-২ গোলের হার দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করা পিএসজি কাল প্রথম পয়েন্ট পেয়েছে রেড স্টার বেলগ্রেডকে ৬-১ গোলে হারিয়ে। অন্যদিকে গোলশূন্য ড্র দিয়ে শুরু করা নাপোলি হারিয়ে দিয়েছে লিভারপুলকে, শেষ সময়ে লরেনজো ইনসিগনের একমাত্র গোলে। ফলে ‘সি’ গ্রুপে আপাতত শীর্ষে নাপোলি, দুইয়ে ৩ পয়েন্ট করে নিয়ে লিভারপুল ও পিএসজি। মৃত্যুকূপ তকমা পাওয়া এই গ্রুপের হিসাব যে বেশ জটিল হবে, সেটা স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে ক্রমশ। ডর্টমুন্ড ৩-০ গোলে হারিয়েছে মোনাকোকে আর অ্যাতলেতিকো ৩-১ গোলে হারিয়েছে ব্রুজেকে। শীর্ষ দুইয়ের সমীকরণ থেকে তাই ক্রমশ বিদায় নিচ্ছে মোনাকো, হয়তো ইউরোপা লিগের জায়গা নিয়েই তারা লড়বে ব্রুজের সঙ্গে। শালকে ১-০ গোলে হারিয়েছে লোকোমোতিভ মস্কোকে, পোর্তো একই ব্যবধানে হারিয়েছে গ্যালাতাসারেইকে। ‘ডি’ গ্রুপেও তাই সমীকরণটা মোড় নিচ্ছে জটিলতার দিকেই। উয়েফা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*