\ ফিক্সিং তালিকায় বাংলাদেশের ম্যাচও | Bangla Photo News
Friday , November 16 2018
Homeখেলাধুলাফিক্সিং তালিকায় বাংলাদেশের ম্যাচও
ফিক্সিং তালিকায় বাংলাদেশের ম্যাচও

ফিক্সিং তালিকায় বাংলাদেশের ম্যাচও

বাংলা ফটো নিউজ : বাংলাদেশের যত জয় রয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে রোমাঞ্চকর জয় হলো ২০১১ বিশ্বকাপে চট্টগ্রামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয়টি। অনেক প্রতিকূলতার মধ্যে ম্যাচটি নিজের করে নিয়েছিল টাইগাররা। ২২৬ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ১৬৯ রানে ৮ উইকেট হারায় টাইগাররা। সেখান থেকে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও দশ নম্বরে নামা শফিউল ইসলামের বীরত্বে জয় পায় বাংলাদেশ। অথচ এতদিন পর গৌরবময় সেই ম্যাচ নিয়েই উঠছে প্রশ্ন। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার ফিক্সিং সন্দেহের ১৫টি ম্যাচের তালিকায় বাংলাদেশের সেই জয়টিও রয়েছে।

কিছু দিন আগেই একবার ক্রিকেট ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে নিজেদের তৈরি একটি তথ্যচিত্র প্রচার করে আল জাজিরা। ক্রিকেটের ৬০ শতাংশ ম্যাচই পাতানো থাকে বলে দাবি করে সংবাদমাধ্যমটি। এই নিয়ে তোলপাড় হয়েছে অনেক। এবার আরেক তথ্যচিত্রে আল জাজিরা নির্দিষ্ট ১৫টি ম্যাচে ফিক্সিং হয়েছে বলে দাবি করে। ২০১১ সাল থেকে ২০১২ সালের মধ্যে অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচগুলোর মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড ম্যাচও। তালিকায় আছে ২০১১ সালে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড ম্যাচ, ২০১১ সালের ভারত-ইংল্যান্ড টেস্টও।

সন্দেহের তালিকায় থাকা ম্যাচগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি জড়িয়ে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের নাম। ৯টি ম্যাচের সাথে জড়িয়ে ইংল্যান্ড ও চারটির সাথে অস্ট্রেলিয়া। আছে দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তান, ভারত, জিম্বাবুয়ে, নেদারল্যান্ডস, কেনিয়ার নামও। যার পাঁচটি ম্যাচই আবার ২০১১ বিশ্বকাপের। ২০১২ সালে টি-২০ বিশ্বকাপের ম্যাচ রয়েছে তিনটি। এদিকে আল জাজিরার অভিযোগ প্রত্যাখান করেছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড ইসিবি। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াও অভিযোগ প্রত্যাখান করে তদন্তের কথা জানিয়েছে। আইসিসি জানিয়েছে আল জাজিরার অভিযোগ আগের মতোই তদন্ত করবে তারা।

যে ১৫ ম্যাচ নিয়ে আল জাজিরার প্রশ্ন :
১. অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড, ওয়ানডে, ২১ জানুয়ারি ২০১১
২. অস্ট্রেলিয়া-জিম্বাবুয়ে, ওয়ানডে বিশ্বকাপ, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১১
৩. ইংল্যান্ড-নেদারল্যান্ডস, ওয়ানডে বিশ্বকাপ, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১১
৪. অস্ট্রেলিয়া-কেনিয়া, ওয়ানডে বিশ্বকাপ, ১৩ মার্চ ২০১১
৫. ইংল্যান্ড-দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়ানডে বিশ্বকাপ, ৬ মার্চ, ২০১১

৬. ইংল্যান্ড-বাংলাদেশ, ওয়ানডে বিশ্বকাপ, ১১ মার্চ ২০১১
৭. ইংল্যান্ড-ভারত, টেস্ট, ২১-২৫ জুলাই ২০১১
৮ .অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকা, টেস্ট ৯-১১ নভেম্বর ২০১১
৯. অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড, টেস্ট, ৯-১২ ডিসেম্বর ২০১১
১০. ইংল্যান্ড-পাকিস্তান, টেস্ট, ১৭-১৯ জানুয়ারি ২০১২

১১. ইংল্যান্ড-পাকিস্তান, টেস্ট, ২৫-২৮ জানুয়ারি ২০১২
১২. ইংল্যান্ড-পাকিস্তান, টেস্ট, ৩-৬ ফেব্রুয়ারি ২০১২
১৩. শ্রীলঙ্কা-জিম্বাবুয়ে টি-২০ বিশ্বকাপ, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১২
১৪. ইংল্যান্ড-আফগানিস্তান টি-২০ বিশ্বকাপ, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১২
১৫. দক্ষিণ আফ্রিকা-পাকিস্তান, টি-২০ বিশ্বকাপ, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১২।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*