\ গুগলে যৌন হেনস্তার অভিযোগে কর্মী ছাঁটাই | Bangla Photo News
Friday , November 16 2018
Homeঅন্যান্যগুগলে যৌন হেনস্তার অভিযোগে কর্মী ছাঁটাই
গুগলে যৌন হেনস্তার অভিযোগে কর্মী ছাঁটাই

গুগলে যৌন হেনস্তার অভিযোগে কর্মী ছাঁটাই

বাংলা ফটো নিউজ : গত দুই বছরে ৪৮ জন কর্মী ছাঁটাই করেছে গুগল। এদের মধ্যে ১৩ জন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাও ছিলেন। গুগল বলছে, যৌন হেনস্তার অভিযোগে তাঁদের ছাঁটাই করা হয়েছিল। বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য দেওয়া হয়েছে।

কর্মীদের কাছে এক চিঠিতে গুগলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) সুন্দর পিচাই বলেন, অশোভন আচরণের বিরুদ্ধে গুগল ক্রমেই কঠোর হয়ে উঠছে।

এর আগে নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, অ্যান্ডি রুবিন নামের এক অ্যান্ড্রয়েড সফটওয়্যার নির্মাতাকে ২০১৪ সালে ছাঁটাই করেছিল গুগল। তাঁর বিরুদ্ধে অশোভন আচরণের অভিযোগ পেয়েছিল প্রতিষ্ঠানটি। অভিযোগ থাকা সত্ত্বেও রুবিনকে প্রায় ৯০ মিলিয়ন ডলারের ‘এক্সিট প্যাকেজ’ প্রদান করেছিল বিশ্বের সবচেয়ে বড় সার্চ ইঞ্জিন প্রতিষ্ঠানটি। তবে রুবিনের এক মুখপাত্র নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে প্রকাশিত তথ্যকে অসত্য দাবি করেন। রুবিনের বিরুদ্ধে অশোভন আচরণের অভিযোগও অস্বীকার করেন তিনি। স্যাম সিঙ্গার নামের ওই মুখপাত্র জানান, রুবিন নিজেই গুগল ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। ২০১৪ সালে রুবিন প্লেগ্রাউন্ড নামে নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান চালু করেন। চাকরি ছাড়ার সময় রুবিনকে ‘তারকার বিদায়’ লিখিত স্মারক দেওয়া হয়েছিল বলে জানান তিনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গুগলের দুইজন নির্বাহী কর্মকর্তার বরাত দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, গুগলের প্রধান নির্বাহী লেরি পেজ রুবিনকে পদত্যাগ করতে বলেছিলেন। কারণ রুবিনের বিরুদ্ধে ২০১৩ সালে হোটেল কক্ষে এক নারী সহকর্মীকে যৌন হেনস্তার অভিযোগের প্রমাণ পেয়েছিল গুগল। নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, গুগলের তদন্ত থেকে ওই নারীর অভিযোগ প্রামাণিত হয়েছিল। যদিও গুগলের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কিছু নিশ্চিত করা হয়নি।

নিউইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত প্রতিবেদনের পরই কর্মীদের উদ্দেশ্যে চিঠি দিয়েছেন সুন্দর পিচাই। প্রতিবেদনটিকে অস্পষ্ট উল্ল্যেখ করে সুন্দর পিচাই বলেন, নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনটি ‘পড়া কঠিন’। কর্মীদের প্রতি নিরাপদ ও সুন্দর কর্মক্ষেত্র প্রদান করে থাকে গুগল। তিনি বলেন, ‘আমরা আপনাদের নিশ্চিত করতে চাই যে, যৌন হেনস্তা কিংবা অশোভন আচরণের প্রতিটি অভিযোগ আমরা খতিয়ে দেখি। সবগুলো অভিযোগ আমরা তদন্ত করি এবং ব্যবস্থা নেই।’তবে, গত দুই বছরে গুগলের কোনো কর্মীই ‘এক্সিট প্যাকেজ’ পাননি বলে পিচাই জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*