\ ক্রিকেটার কলিংউডকে আর দেখা যাবে না! | Bangla Photo News
Saturday , October 16 2021
Homeখেলাধুলাক্রিকেটার কলিংউডকে আর দেখা যাবে না!
ক্রিকেটার কলিংউডকে আর দেখা যাবে না!

ক্রিকেটার কলিংউডকে আর দেখা যাবে না!

Spread the love

বাংলা ফটো নিউজ : ইংলিশ ক্রিকেটার পল কলিংউড এবার সব ধরণের ক্রিকেটকে বিদায় জানাতে যাচ্ছেন। এর আগে ২০১১ সালে টেস্ট এবং ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে বিদায় নিয়েছিলেন তিনি। সর্বশেষ ইংল্যান্ডের হয়ে তাঁকে ২০১৭ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি খেলতে দেখা যায়। তিনি এরপর ডারহামের হয়ে খেলা অব্যহত রাখেন। এই অলরাউন্ডার জানিয়েছেন, এই মৌসুমেই তিনি ডারহাম থেকেও বিদায় নিতে যাচ্ছেন।

কলিংউড ডারহামের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। ইংল্যান্ডের এ বছরের ঘরোয়া মৌসুমের পর ক্রিকেটার জীবনের ইতি টানবেন তিনি। মোট ২৬ মৌসুমের ২৩টি মৌসুমেই ডারহামের হয়ে খেলেছেন তিনি। ৩০৪টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচে ১৬,৮৪৪ রান করেছেন এবং ১৬৪ উইকেট পেয়েছেন। ডারহাম এ মৌসুমে কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে ২৪ সেপ্টেম্বর তাদের শেষ ম্যাচে মিডলসেক্সের বিপক্ষে নামবে, যেটি কলিংউডেরও বিদায়ী ম্যাচ।

সাবেক এই ইংলিশ তারকা ক্রিকেটার বলেন, ‘আমি ইংল্যান্ড জাতীয় ক্রিকেট দল এবং ডারহামের হয়ে অনেক কিছু অর্জন করেছি, যা অকল্পনীয়। এই দীর্ঘ সময়ে এত ভালো ক্যারিয়ার গড়তে পেরে আমি নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করি। অনেক চিন্তা করে আমি এই মৌসুমের পর ক্রিকেট থেকে বিদায় নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এই সিদ্ধান্ত নেওয়া খুব সহজ ছিল না। আমি আমার সর্বোচ্চ দিয়েছি। আমি ভবিষ্যত নিয়ে আগ্রহী এবং সামনে নতুন চ্যালেঞ্জ প্রত্যাশা করছি।’

২০১১ সালের জানুয়ারিতে অ্যাশেজ সিরিজ ৩-১ ব্যবধানে ইংল্যান্ডের জয়ের সিরিজে কলিংউড টেস্ট ক্যারিয়ার ইতি টেনেছিলেন। মাত্র দুই মাস পরেই বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডের মধ্য দিয়ে বিদায় নেন একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকেও। পুরো ডারহাম ক্যারিয়ারে কলিংউড তিনটি পুরস্কার পেয়েছেন, প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার এবং ব্যাটসম্যান অব দ্য ইয়ার। ক্লাবে তাঁর অসাধারণ অবদানের জন্য ঘরের মাঠের একটি প্যাভিলিয়ন কলিংউডের নামে নামকরণ করে তাঁকে সম্মানিত করেছে।

মিস্টার ডারহাম নামে খ্যাত ক্রিকেটার হিসেবে অবসরে গেলেও ক্রিকেটের সঙ্গেই থাকতে চান বলে জানিয়েছেন। এখন ইংল্যান্ড দলে আবারো পল কলিংউডকে অন্য কোনো ভূমিকায় দেখা যাবে কি না, সেটিও সময়ই বলে দেবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*